একটি প্রাচীন বৌদ্ধ বিহার নাম তার পাহাড়পুর বৌদ্ধবিহার । ঢাকার চিঠি

পাহাড়পুর বৌদ্ধবিহার বা সোমপুর বিহার বা সোমপুর মহাবিহার বর্তমানে ধ্বংসপ্রাপ্ত একটি প্রাচীন বৌদ্ধ বিহার। পালবংশের দ্বিতীয় রাজা শ্রী ধর্মপালদেব অষ্টম শতকের শেষের দিকে বা নবম শতকে এই বিহার তৈরি করছিলেন। ১৮৭৯ সালে স্যার কানিংহাম এই বিশাল কীর্তি আবিষ্কার করেন। ১৯৮৫ সালে ইউনেস্কো এটিকে বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী স্থানের মর্যাদা দেয়। পাহাড়পুরকে পৃথিবীর সবচেয়ে বড় বৌদ্ধবিহার বলা যেতে পারে। আয়তনে এর সাথে ভারতের নালন্দা মহাবিহারের তুলনা হতে পারে। এটি ৩০০ বছর ধরে বৌদ্ধদের অতি বিখ্যাত ধর্মচর্চা কেন্দ্র ছিল। শুধু উপমহাদেশের বিভিন্ন স্থান থেকেই নয়, চীন, তিব্বত, মায়ানমার ( তদানীন্তন ব্রহ্মদেশ), মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া প্রভৃতি দেশের বৌদ্ধরা এখানে ধর্মচর্চা ও ধর্মজ্ঞান অর্জন করতে আসতেন।

আজকের ঢাকার চিঠি অনুষ্ঠানে জানবো এই পাহাড়পুর বৌদ্ধবিহার সম্পর্কে। 
ভালো লাগলে অনুষ্ঠানটি শেয়ার করুন সবার সাথে ।

নিয়মিত আমাদের অনুষ্ঠান শুনতে আমাদের সাথেই থাকুন ভিজিট করুন আমাদের ওয়েবসাইট ।
https://bengali.rvasia.org/

এছাড়াও সকল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আমাদের সাথে যুক্ত হতে ভিজিট করুন । 
Facebook: http://facebook.com/veritasbangla
YouTube: http://youtube.com/veritasbangla
Twitter:  https://twitter.com/banglaveritas
Instagram: http://instagram.com/veritasbangla

Add new comment

4 + 1 =