৭১’ এর বীর মুক্তিযোদ্ধা ময়মনসিংহ ধর্মপ্রদেশের গারো ধর্ম-যাজক রবার্ট মানখিন

বীর মুক্তিযোদ্ধা ফাদার রবার্ট মানখিন

ময়মনসিংহ ধর্মপ্রদেশের ফাদার রবার্ট মানখিন বাংলাদেশের একমাত্র ক্যাথলিক গারো ধর্ম-যাজক মুক্তিযোদ্ধা।

তিনি ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশগ্রহণ করে ১১ নং সেক্টরে দূর্গাপুর-ধোবাউড়া উপজেলার বেদিকুড়া, টাংহাতি ও চাউরাপাড়া এলাকায় অস্থায়ী ক্যাম্প স্থাপন করে বিভিন্ন স্থানে ঘেরিরা অপারেশন করেন।

তার অপারেশন কালে টাংহাটি, কুল্লাগড়া, রনসেংপুর ও বিরিশিরি বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য। আগস্ট মাসের শেষে দিনভর রনসেংপুর যুদ্ধে ৫ পাকিস্তান সেনা নিহত হয়েছিল। কিন্তু তখন মুক্তিবাহিনীর কোন যোদ্ধা হতাহত হয়নি।

ফাদার রবার্টের দল ১১ নং সেক্টরে ভারতীয় মিত্র বাহিনীর সাথে ৩ ডিসেম্বর যৌথ রণাঙ্গনে বিজয়পুর, রাণীখং, কুল্লাগড়া, বিরিশিরি জারিয়া-জানঝাল, পূর্বধলা ও গৌরিপুর হয়ে ১০ ডিসেম্বর শম্ভুগঞ্জ অবস্থান করেন। মুক্তি ও মিত্রবাহিনী ১১ ডিসেম্বর সকালে ময়মনসিংহ শহর মুক্ত করেন।

সারা দেশব্যাপি মুক্তি ও মিত্রবাহিনীর যৌথ আক্রমণে টীকতে না পেরে পাকিস্তান সেনারা ১৬ ডিসেম্বর ঢাকার রেসর্কোস ময়দানে প্রায় ৯৩,০০০ হাজার সৈন্য নিয়ে পাকিস্তানের ইর্স্টান কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল আমির আবদুল্লা খান নিয়াজি ভারত ও বাংলাদেশ যৌথ বাহিনীর পূর্ব রণাঙ্গনের প্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল জগজিৎ সিং অরোরার নিকট আত্মসর্মপনের দলিলে স্বাক্ষর করেন।

এই দলিলে স্বাক্ষর করার মধ্য দিয়ে নয় মাস রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধের অবসান ঘটে।

১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর পাকসেনাদের আত্মসর্মপনের মাধ্যমে জন্ম হয় বিশ্বমানচিত্র্যে প্রথম স্বাধীন রাষ্ট্র বাংলাদেশ।

বীর মুক্তিযোদ্ধা ফাদার রবার্ট মানখিন এখন ময়মনসিংহ ক্যাথলিক ধর্মপ্রদেশের ঢাকুয়া ধর্মপ্লীতে তার পালকীয় সেবা দায়িত্ব পালন করছেন।

Add new comment

6 + 9 =