শ্রমিক সাধু যোসেফের ধর্মপল্লীতে অনুষ্ঠিত হলো যাজকীয় অভিষেক

ডিকন মাইকেল হাঁসর্দা’র যাজকীয় অভিষেক অনুষ্ঠান

গত ১ ডিসেম্বর ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ,  রাজশাহী ধর্মপ্রদেশের অধিনে ভূতাহারা শ্রমিক সাধু যোসেফের ধর্মপল্লীতে অনুষ্ঠিত হলো ডিকন মাইকেল হাঁসর্দা’র যাজকীয় অভিষেক।

এই অভিষেক অনুষ্ঠানে পবিত্র খ্রিস্টযাগে প্রধান পৌরহিত্য করেন রাজশাহী ধর্মপ্রদেশের বিশপ জের্ভাস রোজারিও। পবিত্র খ্রিস্টযাগে অংশগ্রহণ করেন বিভিন্ন ধর্মপল্লী থেকে আগত ৩৫ জন ফাদার, ২০ জন সিস্টার ও প্রায় ১৫০০জন খ্রিস্টভক্ত।

রাজশাহী ধর্মপ্রদেশের বিশপ জের্ভাস রোজারিও তাঁর উপদেশ বাণীতে বলেন, “শ্রমিক সাধু যোসেফের ধর্মপল্লীর কাটনা গ্রামের কৃতি সন্তান ডিকন মাইকেল হাঁসদার পুণ্য যাজকীয় অভিষেক উপলক্ষে আমি তাকে জানাই প্রাণঢালা শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। এ জন্য আমি সত্যিই খুব আনন্দিত।

আমি আমার বাস্তব জীবন অভিজ্ঞতা থেকে বলতে পারি যে, রাজশাহী ধর্মপ্রদেশের উত্তর অঞ্চল বাণী প্রচারের একটি উর্বর এলাকা। নব অভিষিক্ত যাজক মাইকেল তার যাজকীয় ও পালকীয় সেবাদায়িত্ব পালনে থাকবে সদাবিশ্বস্ত, এটা হলো আমার প্রত্যাশা। যিশুর বাণী, “ফসল প্রচুর,  কিন্তু মজুর অল্প”:  আমাদের এই রাজশাহী ধর্মপ্রদেশে প্রভুর দাক্ষাক্ষেত্রে কাজ করার জন্য ঈশ্বর আরো একজন মজুরকে পাঠালেন তার জন্য ঈশ্বরকে অসংখ্য ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি। ধন্যবাদ জানাই নব অভিষিক্ত যাজকের প্রয়াত পিতা-মাতাকে এবং তার পরিবারের সকলকে।

শ্রমিক সাধু যোসেফের ধর্মপল্লীর সকল খ্রিস্টভক্তকে অনুরোধ জানাই,  আপনারা আপনাদের এই নব অভিষিক্ত যাজকের জন্য প্রার্থনা করবেন; সে যেন একজন আদর্শ যাজক হিসেবে জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত বিশ^স্ত থাকতে পারে। সকলের প্রতি রইল আমার আন্তরিক অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা। পিতা পরমেশ্বর আপনাদেরকে আশির্বাদ করুন।

নব অভিষিক্ত ফাদার মাইকেল তার অনুভূতি ব্যক্ত করে বলেন, “ঈশ্বর যাকে ধরেন শক্ত করেই ধরেন ছাড়েন না। কাজের ছেলে রাখাল থেকে এখন নিবেদিত জীবনের সন্ধিক্ষণে, ‘হে প্রভু তোমার হাতে আমার প্রাণ সমর্পণ করলাম।’ এ মূহুর্তে স্মরণ করি, যারা আমাকে এই বেদী মূলে আসতে সাহায্য করেছেন, পিতা-মাতা, ভাই-বোন, আত্মীয়-স্বজন, বিশপগণ, ফাদার-সিস্টারগণ, শিক্ষকমণ্ডলি এবং বিভিন্ন পর্যায়ের গঠনগৃহের পরিচালকমণ্ডলি ও খ্রিস্টভক্তগণ। সে সাথে আমার সহপাঠী বন্ধুগণ, বড়ভাই ও ছোট ভাইগণ, মেধা দিয়ে, পরামর্শ দিয়ে, সাহায্য-সহযোগীতার মধ্যদিয়ে অনেক উপকার করেছেন। সকলকে অন্তর থেকে কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানাই।

ভূতাহারা ধর্মপল্লীর পাল-পুরোহিত ফাদার সুশীল লুইস পেরেরা বলেন, “আজকে শ্রমিক সাধু যোসেফের ধর্মপল্লীর সকলে আমরা অনেক আনন্দিত-আশির্বাদিত। এ অঞ্চলে বাণী প্রচার করা হয়েছে এক শতক অতিবাহিত হয়েছে। আর আজকের এই বিশেষ দিনে আমরা অনেক প্রতিক্ষার পর সদ্য অভিষিক্ত যাজক মাইকেল হাঁসদাকে পেয়েছি। তাকে আমাদের সকলের পক্ষে আন্তরিক শুভেচ্ছা-অভিনন্দন-যিশু মারাং জানাই: যাজক তুমি চিরকালের যাজক। এ এলাকায় সান্তালদের মধ্যে যিশুর সেবার সারিতে তিনিই প্রথম যাজক। বিশ্বস্ততা, নিবেদন, যিশুভক্তি হোক তার জীবনের সৌন্দর্য।”

“আমরা তাকে ঘিরে ঈশ্বরকে ও তার পরিবারকে ধন্যবাদ জানাই। সকলে নমস্য ফাদার মাইকেলের মঙ্গল কামনা করি, ভবিষ্যতে তাকে সর্বাত্মক সহায়তা করব। একই সাথে পরপারে চলে যাওয়া তার পিতা-মাতাকে আমরা স্মরণ করি- মঙ্গলময় ঈশ^র তাদের স্বর্গবাসী করুন। যাজক অভিষেক ঘিরে যারা নানাভাবে সাহায্য-সহযোগিতা করেছেন বা করছেন তাদের সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ, তাদের সবার প্রতি অনেক শুভ কামনা,” বলেন ফাদার পেরেরা।

তিনি আরো বলেন, “মিশন আমাদের আমরাই মিশন। এ এলাকায় ধর্মীয় আহ্বান বৃদ্ধির জন্য আসুন, সকলে অনেক প্রার্থনা করি, কাজ করি। আমরা আমাদের সন্তানদের ধর্মীয় জীবনে দানরূপে পাঠাই, ধর্মীয় জীবন বিষয়ে তাদের সঙ্গে আলোচনা করি, নিবেদিত জীবনে যেতে তাদের উৎসাহ ও পরামর্শ দেই। অনেক ছেলে-মেয়ে ধর্মীয় জীবনে আসুক এবং মণ্ডলিকে সক্রিয় রাখুক,”। - বরেন্দ্রদূত

Add new comment

3 + 0 =