তুমিলিয়া ধর্মপল্লীতে অনুষ্ঠিত হলো শিশু পরিচালিকাদের নিয়ে শিশু গঠনদান বিষয়ক সেমিনার

শিশু পরিচালিকাদের নিয়ে শিশু গঠনদান বিষয়ক সেমিনার

দীক্ষাগুরু সাধু যোহনের ধর্মপল্লী, তুমিলিয়াতে অনুষ্ঠিত হলো অর্ধদিবসব্যাপি শিশুমঙ্গল পরিচালিকাদের নিয়ে শিশুদের গঠনদান বিষয়ক এক বিশেষ সেমিনার।

শিশু গঠন ও শিক্ষাদানের কৌশল বিষয়ক শিক্ষাদান পরিচালনা করেন বনানী পবিত্র আত্মা উচ্চ সেমিনারীর পরিচালক ফাদার প্যাট্রিক গমেজ ।

ফাদার প্যাট্রিক শিমন গমেজ তার সহভাগিতায় বলেন, “শিশু পরিচালনা করা এটা কোন পেশা নয় এটা হচ্ছে একটা জীবন ব্রত, এটা একটা প্রতিজ্ঞা যে, আমি শিশুদেরকে যিশুর কাছে নিয়ে আসব।”

ফাদার গমেজ আরও বলেন, “আমরা কেবল শিশুদেরকে যিশুর কাছে নিয়ে আসতে বাধা দিচ্ছি না বরং এই পৃথিবীতে নিয়ে আসতে বাধা দিচ্ছি। শুধু এটাই নয় বরং গর্ভের সন্তানকে নষ্ট করা হচ্ছে, নর হত্যা করা হচ্ছে। যেটা জঘন্ন একটা পাপ।”

তিনি শিশু পরিচালিকাদেও উদ্দেশে বলেন, পরিচালনা মানে শুধু ঘুন ধরা কাঠের উপর রং দেওয়া নয়, পরিচালনা মানে সেই ঘুন ধরা জায়গা থেকে শুরু করা, সেই জায়গায় যাওয়া। আমাদের পরিচালিকাদের সেই যায়গায় যেতে হবে, পিতা মাতা না চাইলেও শিশুদের শিক্ষার জন্য লেগে থাকতে হবে।

শিক্ষাদান এবং খ্রিস্টিয় মূল্যবোধ সম্পর্কে বলতে গিয়ে ফাদার বলেন, যিশু নিজেই ছিলেন একজন শ্রেষ্ঠ শিক্ষক, তাই তার কাছ থেকে আমরা শিক্ষতে পারি। শিক্ষাদান আসলেই কী? সেই বিষয়ে বলেন, শিক্ষাদান হচ্ছে একটা গভীর অনুরাগের বিষয়। শিক্ষাদান হচ্ছে বিশেষ অঙ্গীকার, প্রবল ইচ্ছা, মানুষ গঠন করার প্রতিশ্রুতি।

এই সেমিনারে ধর্মপল্লীর পাল-পুরোহিত ফাদার আলবিন গমেজসহ, প্রায় ৪০জন শিশু পরিচালিকা, একজন সিস্টার এবং কয়েকজন শিশু উপস্থিত ছিলেন।- ফাদার লিয়ন রোজারিও

Add new comment

3 + 2 =