বিশ্বাস আমাকে মালিতে বন্দিদশা থেকে বাঁচতে সাহায্য করেছিল -সিস্টার নারভেজ

Sister Narváez says faith helped her survive captivity in MaliSister Narváez says faith helped her survive captivity in Mali. Photo : vaticannews

ইসলামি জঙ্গিদের হাতে অপহরণের প্রায় পাঁচ বছর পর ৮ অক্টোবর ২০২১ খ্রিস্টাব্দে মালিতে মুক্তি পাওয়া একজন কলম্বিয়ান মিশনারী বলেন, বিশ্বাস ও প্রার্থনাই আমাকে অগ্নিপরীক্ষা থেকে বাঁচিয়েছে। ফ্রান্সিসকান সিস্টারস্ অফ মেরী ইম্মাকূলেট ধর্মসংঘের সিস্টার গ্লোরিয়া সিসিলিয়া নারভেজ আরগোতি ফেব্রুয়ারি ৭, ২০১৭ খ্রিস্টাব্দে অপহৃত হন এবং সম্প্রতি ৯ অক্টোবর ২০২১ খ্রিস্টাব্দ মুক্ত হন ভাতিকান ও কলম্বিয়ান বিশপদের আলোচনা ও মধ্যস্থতার মধ্যদিয়ে।

পরেরদিনই সিস্টার নারভেজ রোমে যান এবং জনগণের সাথে পোপ মহোদয়ের সাধারণ সমাবেশে অংশগ্রহণ করেন। ভাতিকান নিউজকে তিনি তার অভিজ্ঞতার বর্ণনা দেন এবং ঈশ্বর ও মণ্ডলীকে বিশেষভাবে পোপ ফ্রান্সিস ও ইতালিয়ান কর্তপক্ষকে ধন্যবাদ দেন যারা তার মুক্তি নিশ্চিত করেন।

সিস্টারের বন্দীদশায় কলম্বিয়ান চার্চ ও তার সংঘের সিস্টারগণ আন্তর্জাতিক মনোযোগ আকর্ষণের জন্য অবিরত প্রার্থনা করতে থাকেন।

সিস্টার নারভেজ জানান, অপহরণকারীদের সাথে তার একটি সুন্দর মানবীয় সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল যেখানে পারস্পরিক শ্রদ্ধা ছিল যদিও তিনি তার ধর্মীয় অবস্থান ও কাথলিক বিশ্বাসের কারণে অপহরণকারীদের কাছে আগন্তুক হিসেবে বিবেচিত ছিলেন। অপহরণকারীরা বার বার বলতো যে ইসলাম হলো সত্য ধর্ম । আমি তাদেরকে সম্মানের সাথে কথা বলতে দিয়েছিলাম; কিন্তু আমি বুঝতে পারছিলাম যে কাথলিক ও সিস্টার হওয়ায় তারা আমাকে প্রত্যাখান করছে।

তিনি জানান, প্রার্থনা এবং সামসঙ্গীত আবৃত্তি তাকে নিরাপদ অনুভব করতে অনেক সহায়তা করেছে। তাই মুক্ত হবার পর তার প্রথম চিন্তা হলো কখন তিনি হৃদয় মন উজাড় করে ঈশ্বরকে ধন্যবাদ দিতে পারবেন।

অপহৃত সিস্টার নারভেজ আরো জানান, ফ্রান্সিসকান সিস্টারগণ মালির কারানগাসোর জেলার বিভিন্ন গ্রামে স্বাস্থ্য সেবা, অর্ফানেজ পরিচালনা, শিক্ষাদান, সেলাই ও এমব্রয়ডারি শিক্ষাদান করে যাচ্ছে। তারা মহিলাদেরকে ব্যবসায় সহায়তা দিতে মাইক্রো-ক্রেডিটও পরিচালনা করতে সহায়তা করে যাচ্ছেন। 

সংবাদ সংগ্রহ : সাপ্তাহিক প্রতিবেশী

Add new comment

7 + 11 =