বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি উপল্লক্ষে পোপ ফ্রান্সিস এর বাণী

বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি উপল্লক্ষে এক ভিডিও বার্তায় দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানান পোপ ফ্রান্সিস

গত ২৪ মার্চ ২০২১ খ্রিস্টাব্দে, ভাটিকান সিটি থেকে পোপ ফ্রান্সিস বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি উপল্লক্ষে ভিডিও বার্তার মাধ্যমে তিনি তার বিশেষ বাণী দিয়েছেন ।

সেখানে তিনি উল্লেখ করেছেন যে, বিগত ৫০ বছরের মধ্যে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক, সামাজিক ও সংস্কৃতির বিভিন্ন ভাবে দেশ এগিয়ে গেছে বলে তিনি প্রশংসা করেন।

মুজিব জন্মশতবর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষ্যে আয়োজিত ৮ম দিনের অনুষ্ঠানে এক ভিডিও বার্তায় দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানান ক্যাথলিক ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিস।

পোপ ফ্রান্সিস বলেন, বর্তমান প্রজন্মের সামনে যে সোনার বাংলা তা এসেছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উত্তরাধিকার হিসেবে। প্রাকৃতিক সৌন্দর্য এবং সাংস্কৃতিক ঐক্য, ভাষা নিয়ে সহাবস্থানে এক আধুনিক নাগরিকের দেশ বাংলাদেশ, যার আরেকটি পরিচয় সোনার বাংলা। এই সোনার বাংলার স্বপ্ন দেখেছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

তিনি এমন এক সমাজ ও রাষ্ট্রের স্বপ্ন দেখেছেন যেখানে শান্তি, স্বাধীনতা ও নিরাপত্তার সঙ্গে সব সম্প্রদায় বসবাস করবে। দেশটির আজকের প্রজন্ম পর্যন্ত এই ধারাবাহিকতা এসেছে শেখ মুজিবুর রহমানের উত্তরাধিকার হিসেবেই।

স্বাধীনতার ৫০ বছরে বাংলাদেশ উন্নয়নে এগিয়ে গেছে অনেক দূর-এমন আনন্দের অর্জনে দেশের রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী ও জনগণকে শুভেচ্ছা জানান পোপ ফ্রান্সিস। বাংলাদেশের ওপর আশির্বাদ বজায় রাখার জন্য সৃষ্টিকর্তার প্রতি কৃতজ্ঞতাও জানান তিনি।

পোপ ফ্রান্সিস বলেন, 'ভিন্ন ভাষা, সংস্কৃতি ও সম্প্রদায়ের প্রতি দেশের মানুষের যে শ্রদ্ধা তা বঙ্গবন্ধুর অসামান্য অর্জন। বঙ্গবন্ধু তাঁর জ্ঞান, দৃষ্টিভঙ্গির মাধ্যমে সবার সমান অংশগ্রহণমূলক আলোচনার পরিবেশ তৈরি করে গেছেন। যার মাধ্যমে দেশের প্রতিটি মানুষ শান্তি, নিরাপত্তা ও স্বাধীনভাবে বাঁচার সুযোগ পাচ্ছে।'

পোপ মহোদয় বলেছেন, আমার হৃদয়ে বাংলাদেশের জন্য সবসময়ই বিশেষ জায়গা রয়েছে । বাংলাদেশে সুস্থ রাজনৈতিক এবং গণতান্ত্রিক পরিবেশের কথা উল্লেখ করে তিনি সবার প্রতি শুভকামনা জানান।

Add new comment

5 + 12 =