বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবিতে ৩২ জনের মৃতদেহ উদ্ধার

Photo Credit to Owner

বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহনের কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান গোলাম সাদিক সাংবাদিকদের বলেন, দুই লঞ্চের সংঘর্ষের কারণেই এই দুর্ঘটনাটি ঘটে।

রাজধানীর পুরান ঢাকার ফরাশগঞ্জ-শ্যামবাজার এলাকা সংলগ্ন বুড়িগঙ্গা নদীতে লঞ্চডুবির ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৩২ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তার মধ্যে ৩ জন শিশু ৯ মহিলা ও ২০ পুরুষ।

সোমবার (২৯ জুন) বেলা সোয়া ১২টার দিকে ঘটনাস্থল থেকে ফায়ার সার্ভিসের মহাপরিচালক (ডিজি) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সাজ্জাদ হোসাইন সংবাদ মাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সূত্রে জানা যায়, ঢাকা-চাঁদপুর রুটের ময়ূর-২ নামের একটি লঞ্চের ধাক্কায় কমপক্ষে ৫০ যাত্রী নিয়ে ঢাকা-মুন্সিগঞ্জ রুটের মর্নিং বার্ড লঞ্চটি ডুবে যায়। লঞ্চটি থেকে কয়েকজন যাত্রী সাঁতরে পাড়ে উঠলেও বেশ কয়েকজন নিখোঁজ রয়েছেন। নিখোঁজদের উদ্ধারে ইতোমধ্যেই ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল উদ্ধার অভিযান শুরু করেছে। এছাড়া নারায়ণগঞ্জ থেকে উদ্ধারকারী জাহাজ ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার তৎপরতা চালচ্ছে।

দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ জামান সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, ধারণা করা হচ্ছে প্রায় ১০০ জন যাত্রী ছিলেন ওই লঞ্চে। এরমধ্যে নিখোঁজ হয়ে যান প্রায় ৭০ জন। তা থেকে ৩২ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে এরইমধ্যে।

নিখোঁজ হওয়া স্বজনদের ০১৭১৬০২৬৭০৪ নম্বরে যোগাযোগের জন্য অনুরোধ করেছেন বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষ ।

Add new comment

6 + 1 =

Please wait while the page is loading